বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর কমিশন্ড পদে (অফিসার ক্যাডেট)যোগদানের যোগ্যতাঃ

সঠিক ও হালনাগাদ তথ্য যেখানে পাওয়া যাবেঃ ভিজিট করুন https://www.joinnavy.mil.bd/site/pageType/28/type/officer অথবা আবেদন পত্র আহ্বানের সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখুন ।

বয়সঃ সাধারণত ১লা জানুয়ারি ১৬.৫-২১ বছর

শিক্ষাঃ এসএসসি ও এইচএসসি (বিজ্ঞান) বা সমমান । গণিত ও পদার্থ বিজ্ঞান । সরবরাহ শাখার জন্য ব্যবসায় শিক্ষা । পরীক্ষার ফলাফল সাধারণত পরিবর্তনশীল । হালনাগাদ তথ্যের জন্য ভিজিট করুনঃ https://joinbangladesharmy.army.mil.bd/ অথবা আবেদন পত্র আহ্বানের সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখুন ।

শারিরীকঃ সাধারণত নিচের মাপ বিবেচনা করা হয় । হালনাগাদ তথ্যের জন্য ভিজিট করুন https://joinbangladesharmy.army.mil.bd/ অথবা আবেদন পত্র আহ্বানের সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখুন ।

পুরুষঃ ন্যুন্যতম মাপঃ

উচ্চতাঃ ১৬২.৫ সেমি মিটার (৫ ফুট ৪ ইঞ্চি)

ওজনঃ ৫০ কিলোগ্রাম (১১০ পাউন্ড) উচ্চতা ও বয়সের সাথে ডাক্তারি হিসেবে ওজন সামঞ্জস্য পূর্ণ হতে হবে ।

বুকঃ স্বাভাবিকঃ ০.৭৬মিটার (৩০ ইঞ্চি) প্রসারণঃ ০.৮১মি (৩২ ইঞ্চি)

মহিলাঃ ন্যুন্যতম মাপঃ

উচ্চতাঃ ১.৫৭ মিটার (৫ ফুট ২ ইঞ্চি)

ওজনঃ ৪৭ কিলোগ্রাম (১০৪ পাউন্ড) উচ্চতা ও বয়সের সাথে ডাক্তারি হিসেবে ওজন সামঞ্জস্য পূর্ণ হতে হবে ।

বুকঃ স্বাভাবিকঃ ০.৭১মি (২৮ ইঞ্চি) প্রসারণঃ ০.৭৬মি (৩০ ইঞ্চি)

বৈবাহিক অবস্থাঃ অবিবাহিত

জাতীয়তাঃ জন্ম / ডোমিসাইল সূত্রে বাংলাদেশী

অযোগ্যতাঃ সামরিক বাহিনী সহ যে কোন সরকারি চাকুরী থেকে অপসারিত / বরখাস্ত আইএসএসবি থেকে দুইবার স্ক্রিন্ড আউট / প্রত্যাখ্যাত । একবার স্ক্রিন্ড আউট একবার প্রত্যাখ্যাত হোলে আবেদন করা যাবে । মেডিকেল বোর্ড কতৃক অযোগ্য ঘোষিত

নির্বাচন পদ্ধতিঃ প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও প্রাথমিক সাক্ষাতকার লিখিত পরীক্ষা (বুদ্ধি মত্তা, ইংরেজি এবং সাধারণ জ্ঞান) আইএসএসবি চূরান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা চূরান্ত নির্বাচন এবং যোগদান নির্দেশিকা প্রদান

প্রশিক্ষনঃ নেভাল একাডেমিতে প্রশিক্ষন সফল প্রশিক্ষন শেষে কমিশন্ড পদে যোগদান

কমিশন্ড পদে যোগদানের জন্য কি ধরনের প্রস্তুতির প্রয়োজন?

সামরিক বাহিনীতে যোগদানের জন্য বিশেষ কোন প্রস্তুতির প্রয়োজন নাই । শিশুকাল থেকে পড়াশোনার পাশাপাশি মূল্যবোধ সম্পন্ন স্বাভাবিক জীবনযাপন করলেই নিজেকে সামরিক বাহিনী সহ সকল ক্ষেত্রের জন্য প্রস্তুত করতে পারবে ।
অল্প সময়ে সামরিক বাহিনীতে যোগদানের প্রস্তুতি নেয়া সম্ভব নয় । পিতামাতা বা অভিবকদের উচিৎ হবে সন্তানদেরকে শিশু কাল থেকে মূল্যবোধ সম্পন্ন স্বাভাবিক জীবন যাপনে উৎসাহিত করা । একই ভাবে প্রার্থীদেরও উচিৎ হবে মূল্যবোধ সম্পন্ন স্বাভাবিক জীবন যাপন করা ।
নিয়মিত পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা, সামাজিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ, বিভিন্ন কাজে নেতৃত্ব দেয়ার চেস্টা করা (যেমন শ্রেণি কক্ষ, খেলাধুলা, পারিবারিক কাজ, এলাকার কোন কর্মকান্ড ইত্যাদি), পিতামাতা, আত্মীয় স্বজন, বন্ধুবান্ধব, দুস্থ সহ সকলকে সাহায্য করা বা সাহায্যের মনোভাব গড়েতোলা, সহনশীল, শ্রদ্ধাশীল, ধর্মীয় মূল্যবোধ ইত্যাদি মেনে চলা । মানুষের সাথে যোগাযোগ স্থাপন এবং কথা বলায় দক্ষতা অর্জন করতে হবে । সমস্যার বিশ্লেষণ করে সমাধান বের করা ও মানুষের কাছে নিজের মতামত / সিধান্ত প্রকাশ করার দক্ষতা অর্জন করতে হবে । এছাড়াও নিয়মিত খবরের কাগজ পড়ে এবং টেলিভিশনের দেশী বিদেশী খবর শুনে নিজেকে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ে হালনাগাদ রাখতে হবে ।
জেনে রাখা প্রয়োজন, সামরিক বাহিনী ছাড়াও সকল নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান উল্লেখিত গুণাবলী সম্পন্ন মানুষের খোঁজ করে । সামরিক বাহিনী নিয়োগ প্রক্রিয়ায় মেধা যাচাইয়ের পাশাপাশি নৈতিক মূল্যবোধ, শারিরীক যোগ্যতা এবং নেতৃত্ব প্রদানের ক্ষমতা কঠোরভাবে বিশ্লেষণ করে থাকে ।
তাই অপেক্ষা না করে এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু কর!

সামরিক বাহিনীর চূরান্ত শারীরিক পরীক্ষার জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্যঃ
সামরিক বাহিনীর জন্য শারীরিক যোগ্যতার প্রয়োজনীয়তাঃ

সামরিক বাহিনীতে কেনো উচ্চ মানের শারীরিক যোগ্যতা প্রয়োজন তার উপর Indian Army এর একটি ভিডিও দেয়া হোল যা যেকোনো সামরিক বাহিনীর জন্য প্রযোজ্য । আমরা আশা করবো বাংলাদেশ সামরিক বাহিনী প্রার্থীদের অবগতির জন্য এই জাতীয় ভিডিও প্রচার করবে

বিশেষ বিজ্ঞপ্তি

১৫ জানুয়ারি ২০১৮ থেকে সেনা, নৌ, বিমান বাহিনী (লিখিত), সম্পুর্ণ আইএসএসবি এবং বিসিএস (প্রিমিলিনারি-অধিকাংশ বিষয়) সাবস্ক্রিপ্সনের ভিত্তিতে পাওয়া যাবে । অন্যান্য সেবা পূর্বের ন্যায় বিনা মূল্যে উন্মুক্ত থাকবে ।